ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র বালুকণা মিলে বিশাল ভূখন্ড গড়ে উঠে।
একজন মানুষ যখন ছোটো ছোটো পায়ে এগিয়ে যায়। বড়ো হয়।
তখন কেউ হাত তালি দেয় আর কেউ চোখ টাটায়।
হিংসে করে। তাকে টেনে ধরে রাখে।
কেন সে এগিয়ে যাচ্ছে, কেন তাকে থামিয়ে রাখা যায় না। কেন সে অন্যদের চেয়ে আলাদা।
হিংসা করতে করতে ওই ব্যক্তি নিজের কাজ ভুলে যায়। হিংসা করতে করতে সে নিজেকে অপরের কাছে তুচ্ছ করে।
সে নিজেকে হাস্যকর করে। কিন্তু বুঝতে পারে না।
আঘাত করে আর হিংসা ছড়ায়।
এতে সমাজের শান্তি নষ্ট করে।
শুভকামনা জানানোর জন্য কলিজা লাগে।
হাত বাড়িয়ে এগিয়ে দিতে সাহস লাগে।
সত্য পথের সাগর পাড়ি দিতে গিয়ে হিংসার মতো বাঁধার মুখোমুখি হয় বারবার।
যত এগুতে যায় পিছুটান পায় মানুষ।
প্রিয় মুখ এমন আচরণ করতে পারে আমাদের বিশ্বাস করতে কষ্ট হয়। তখন বরই গাছের কাঁটায় জামা আঁটকে গেলে যেমন একটানে ছাড়িয়ে নিতে হয় তেমন হ্যাচকা টানে হিংসুটে চেহারা ছাড়িয়ে নিজের গন্তব্যের দিকে এগিয়ে যেতে হয়।
মনের সুন্দরের জন্য চর্চা করতে হয়।
মনে আসা অযাচিত অশোভন উদ্দেশ্যকে দমন করা হল মনুষ্যত্ব থাকার উপায়।
মন থাকলেই তো আর সকলে মানুষ হয় না।

তাহমিনা তানিয়া

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here