আমার মনে হয় সব মানুষের কাছে তার শৈশব কৈশোর এর জীবন সব থেকে সুন্দর হয়। সে যতই বড়ই হোক না কেন, শৈশবের সময় মিস করে না এমন মানুষ নেই।

আগে গরমের ছুটি অথবা শীতের ছুটিতে গ্রামের বাড়িতে বেড়াতে যেতাম।।।। সমবয়সীদের সাথে এক সাথে সারাদিন খেলা আর পিকনিক খাওয়ার সেই দিনগুলো।।।। সত্যিই দারুণ ছিল।।।
আর এখন ঈদের ছুটিতে গ্রামের বাড়ি যাওয়া হয়, কিন্তু সেইটা শ্বশুড় বাড়ি।।। আমার গ্রামের বাড়ি চাঁদপুর আর আমার শশুড় বাড়ি নওগাঁতে।।।।
লোডশেডিং এর সেই দিনগুলো খুব মিস করি।।।।

কখন, কারেন্ট চলে যাবে আর পড়াশোনার ফাকি মারাব।।। কারেণ্ট চলে গেলে সব বন্ধুরা মিলে বাসার নিচে খেলতাম আর পরদিন স্কুলের হোমোয়ার্ক দেয়া সময় কমন উত্তর ছিল, স্যার “কালকে বাসায় কারেন্ট ছিল না তাই পড়তে পারিনি”।

আর এখন লোডশেডিং নেই বললেই চলে, যদিও হয়, কিছুক্ষণ পরেই জেনারেটরের আলো চলে আসে।৷ 🥴

শীতে সময় তো অনেক মজার সময় ছিল।।। সারা বছর বসে থাকতাম কবে শীত শুরু হবে।।।
ফাইনাল পরিক্ষা শেষ হলে ১ মাসের ছুটি।।। আহ!! কি মজা !!

ঢাকায় থাকলে বেডমিন্টন খেলা আর গ্রামে গেলে পিঠা পায়েশ, পিকনিক খাওয়া আর ঘুরে বেড়ানো ছিল আমাদের বন্ধুমহলের কাজ।

আর এখন নিজের জন্য সময় বের করতে পারাই বিরাট চেলেঞ্জ!

তবুও জীবন অনেক সুন্দর।।।। একেক সময়ে একেক রকম সুন্দর।।।৷ আমাদের জীবনের এত ভেরাইটিস আছে বলেই আমরা জীবনটাকে উপভোগ করতে পারি।।।

এখন নিজের বাচ্চাদের দেখলে নিজেদের শৈশবের কথাগুলো মনে হয়।।। সময়গুলো আমরাও পেরেয়ে এসেছি।
সব মিলিয়ে ভালো থাকা টাই অনেক বড় কিছু।।।
আমরা সবাই ভালো রাখব, ভালো থাকব।

কামরুন্নেসা পলি
স্বত্ত্বাধিকারী
রঙিন হাড়ি

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here