নিরাপদ ও দেশী পণ্য ব্যবহার করে দেশকে এগিয়ে নিয়ে যান-শাহীনা রহমান

শাহীনা রহমান। পড়াশোনা করেছেন সমাজবিজ্ঞান নিয়ে, এরপর মাস্টার্স করেছি Violence Against Women নিয়ে, দেশের বাইরে থেকে ।

পিওর বাংলাদেশ ৭১ নিয়ে কাজ করছেন ২০১৫ সালের ১লা এপ্রিল থেকে। হাতে তৈরি, ঢেঁকি ছাটা মশলা, গ্রামীণ খাদ্যপন্য এবং অবশ্যই দেশী পণ্য নিয়ে। দীর্ঘ ১৬ বছর চাকরি করার পর, নিজে কিছু করার ভাবনা থেকেই পিওর বাংলাদেশ৭১ এর জন্ম।

পিওর বাংলাদেশ৭১ আমরা যখন গঠন করা হয়, তখন কয়েকটা ব্যাপার মাথায় ছিল। এ প্রসঙ্গে শাহীনা রহমান জানান তার উদ্দেশ্যের কথা-

ঢাকা শহরে বসে খাঁটি পন্য পাওয়া কঠিন। কর্মজীবী নারী, যাদেরকে, অনেক টা সময় বাইরে কাটিয়ে আবার রান্নাঘরে সময় দিতে হয়, তাদের কাজ কিছুটা সহজ করে দেয়াই এই প্রতিষ্ঠানের অন্যতম লক্ষ্য ।
এছাড়া তিনি বলেন, আমাদের দেশে অনেক দেশী ও গ্রামীণ পদ্ধতিতে তৈরি খাবার রয়েছে, যেটার হয়ত শ্রম মূল্য অনেক বেশী, কিন্তু পরিছন্ন উপায়ে তৈরি করতে পারলে পুষ্টিগুণ অক্ষুণ্ণ থাকে। পিওর বাংলাদেশ৭১ সেই পণ্যগুলো পৌঁছে দেয়ার চেষ্টা করে।

শাহীনা রহমান বলেন, আমরা সবাই যেভাবে মেশিন নির্ভর, খুব দ্রুত ফল পেতে চাই, সেখানে আমাদের পণ্যগুলো কেমিক্যাল ফ্রি, হাতে তৈরি —-এ যেন অনেকটা স্রোতের উলটো দিকে হাঁটার মতো!

তিনি বিশ্বাস করেন, যেকোন সমস্যার সমাধান প্রাকৃতিকভাবেই সম্ভব, শুধু একটু সময় আর ধৈর্য থাকতে হবে।

কথা প্রসঙ্গে তিনি জানান, অনেকের প্রশ্ন ছিল হঠাৎ কেন এই গ্রামীণ খাদ্যপন্য নিয়ে কাজ করা? শাহীনা রহমানের জন্ম, বড় হওয়া পুরনো ঢাকার এক বিশাল বাড়ীতে। আম, কাঁঠাল, নারকেল, মধু কোনদিন কিনে খেতে হয় নি। গ্রাম থেকে নিয়মিত চাল, চালের আটা, ডাল, ডালের বড়ি, খেজুর এর গুড়‌ পাটালি আসত। তিনি খুব গর্ব করেই বলেন ‘আমার চাচারা কৃষি কাজ এর সাথে সংযুক্ত, তাই আমাকে পণ্যের মান নিয়ে তেমন মাথা ঘামাতে হয় না’।

পিওর বাংলাদেশ৭১ এর যে ছোট্ট কর্মী দল আছে। তারাই পিওর বাংলাদেশ৭১ এর চালিকাশক্তি, তাদের কে তাদের মতো করেই, খাদ্যপন্য টি তৈরি করতে দেয়া হয়, এতে একটা বেশ গ্রামীণ স্বাদ অক্ষুণ্ণ থাকে! শুধু খেয়াল রাখা হয়, যেন তারা পরিছন্নতা( মুখে, হাতে, মাথায় মাস্ক/গল্ভস) বজায় রাখেন।

শাহীনা রহমান পেইজ শুরুর প্রথম থেকে সাড়া পেয়েছেন যেমন, সেরকম কিছু প্রতিবন্ধকতাও ছিল। যেমন অনেকেই ঠিক বুঝতে চান না, বাজারে পণ্যের দাম আর নিরাপদ পণ্য/ঢেঁকি ছাটা পন্য’র দামের ফারাক কেন? তবে পিওর বাংলাদেশ৭১ এর পন্য একবার ব্যবহার করলে এখন ক্রেতারা বুঝে থাকেন, যে পরিমানে কম লাগে আর একদম খাঁটি, দেখা যায় তারাই অন্য দের কে উৎসাহিত করেন।

ক্রেতার উদ্দেশ্যে একটাই বার্তা ছড়িয়ে দিতে চান শাহীনা রহমান, নিরাপদ ও দেশী পণ্য ব্যবহার করে দেশকে এগিয়ে নিয়ে যান। আমরা আমাদের পণ্যের প্রচার এবং ব্যাবহার যদি না করি, তাহলে দেশের অর্থনীতি কি করে এগোবে? আমাদের ক্ষুদ্র উদ্যোগ গুলোই বা কি করে বড় হবে?

উদ্যোগের নাম –Pure Bangladesh

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here